• আপডেট টাইম : 01/08/2022 09:41 AM
  • 65 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম, কুষ্টিয়া
  • sramikawaz.com

 

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানায় দায়ের করা শিশু ধর্ষণ মামলায় সুজন (২৬) নামে প্রতিবেশী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার দুপুরে কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক সৈয়দ হাবিবুল ইসলাম আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘেষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সুজন দৌলতপুর উপজেলার আলীনগর গ্রামের শাহারুল মন্ডলের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর সকালে বাড়িতে পিতামাতার অনুপস্থিতির সুযোগে প্রতিবেশী যুবক সুজন শিশু কন্যা (১৪) কে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে। এসময় শিশুটির চিৎকার শুনে আশপাশের অন্যান্য প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে ধর্ষক সুজন পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা আহত শিশু কন্যাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ ঘটনায় ধর্ষিত শিশু কন্যার মা মঞ্জুরা খাতুন বাদী হয়ে সুজনকে একমাত্র আসামি করে ০২ জানুয়ারী ২০১৯ তারিখে দৌলতপুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রæয়ারি ধর্ষক সুজনের বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা দৌলতপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক আজিজুর রহমান।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) এ্যাড. আব্দুল হালিম বলেন, দৌলতপুর থানার শিশু ধর্ষন মামলাটি দীর্ঘ সা¶্য শুনানী শেষে আসামি সুজনের বিরুদ্ধে আনীত শিশু ধর্ষণে জড়িত থাকার অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমানিত হওয়ায় দোষী সাব্যস্ত করে তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...