• আপডেট টাইম : 09/10/2023 01:40 AM
  • 1168 বার পঠিত
  •   আওয়াজ প্রতিবেদক:
  • sramikawaz.com

 

গার্মেন্টস শ্রমিকদের ন্যূনতম বেতন ১৭ হাজার ৫৬৮ টাকার যে প্রস্তাব সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিবিডি) করেছে,  এটা শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি থেকে বঞ্চিত করার ষড়যন্ত্র বলে মনে করেন বাংলাদেশ গার্মেন্টস ও সোয়েটার শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের নারায়নগন্জ জেলা আহবায়ক এমএ সাহীন। তিনি বলেন, দেশের গার্মেন্ট শ্রমিক সংগঠনগুলো শ্রমিকদের ন্যুনতম মজুরি ২৩ হাজার টাকার দাবিতে ঐক্যবদ্ধ। তখন সিপিডি ১৭ হাজার ৫৬৮ টাকা বেতন প্রস্তাব করে শ্রমিকদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলো।

তিনি বলেন, আমরা অর্থনীতি ও পুষ্টিবিদের  সমন্বয়ে গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটির কমিটির মাধ্যমে ঠিক করেছে  ঠিক মত খেয়ে পরে ‍বেঁচে থাকার জন্য কম পক্ষে ২৩ হাজার টাকা দরকার। দেশের মূল্যস্ফীতি তথা জীবন যাত্রার ব্যয়ের কথা বিবেচনা করে  খেয়ে পরে বেঁচে থাকার জন্য ও উৎপাদনশীলতা ঠিক রাখতে ২৩ হাজার মজুরি দরকার।

এর আগে সিপিডির আগের গবেষণাতেও বলা হয়েছিল, এক জনের শ্রমিক পরিবারের জন্য খেয়ে পরে বেঁচে থাকতে ন্যুনতম ৮ হাজার টাকার কমে সম্ভব নয়। অপর গবেষণা প্রতিষ্ঠান  সানেমের এক গবেষণাতেও বলা হয়েছে শ্রমিকের খেয়ে পরে বেঁচে থাকার জন্য ন্যূনতম ১৯ থেকে ২৬ হাজার টাকা লাগে। তাহলে সিপিডি কিসের ভিত্তিতে কোন তথ্যের ভিত্তিতে এখন ১৭ হাজার কমিয়ে ৫৬৮ টাকা প্রস্তাব করেছে, এটা বোধ্য গম্য নয়।

 

মজুরি বোর্ড মজুরি নির্ধারণে যখন সব কিছু গুছিয়ে নিয়ে এসেছে তখন সিপিডি এ ধরণের প্রস্তাব কলে শ্রমিক ক্ষতি করলে বলে মনে করেন এই শ্রমিকনেতা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...