• আপডেট টাইম : 14/06/2022 03:17 PM
  • 151 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

কুষ্টিয়ায় জালাল উদ্দিন (৭০) নামে এক গৃহকর্তা বা বাড়ির মালিককে গলাকেটে হত্যার দায়ে সাহাবুল ও তার স্ত্রী মারিয়াকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ২০হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ১টার দিকে কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এক আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার নওপাড়া গ্রামের মৃত মুন্তাজ মন্ডলের ছেলে সাহাবুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মারিয়া ।
আদালত সূত্রে জানা যায় ২০২০ সালের ২৫ জানুয়ারী আসামি সাহাবুল সামান্য বেতনে চাকুরী করায় তাদের সংসার পরিচালনা করার জন্য বাড়ির মালিকের বাসায় চুরির পরিকল্পনায় করেন। নিহত বাড়ির মালিকের স্ত্রী রিনা খাতুন বাড়ির বাইরে গেলে আসামিরা মেইন গেট দিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে ঘরে রক্ষিত বিভিন্ন সম্পদ চুরি করে। চুরির ঘটনাটি বাড়ির মালিক জালাল উদ্দিন টের পায় এবং চিৎকার করতে থাকলে আসামি সাহাবুল ও তার স্ত্রী মারিয়া তার মুখ হাত পা চেপে ধরে ধারালো বটি দিয়ে গলাকেটে করে হত্যা করে।
এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রিনা খাতুন কুষ্টিয়া মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আননুর যায়েদ তদন্ত শেষে ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারী আসামিদের সনাক্ত করে আদালতে মামলার চার্জশীট দাখিল করেন। আদালত ১১জনস্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আজ (১৪ জুন) এ রায় দেন।
আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, হত্যা মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় স্বা মী ও স্ত্রীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় স্বা মী সাহাবুল উপস্থিত থাকলেও স্ত্রী মারিয়া পলাতক রয়েছেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...