• আপডেট টাইম : 12/02/2024 04:36 PM
  • 150 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম,কুষ্টিয়া
  • sramikawaz.com

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গার বেসরকারী হাসপাতাল আনোয়ারা বিশ্বাস মা ও শিশু হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া ৩ দিনের নবজাতক আরিয়ান ইসলাম নুরনবীকে অবশেষে ৪দিন পর উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ ঘটনায় চোর চক্রের দুই নারী সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার রাত ৮টায় দৌলতপুর উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের গোয়ালগ্রাম মোল্লাপাড়ায় অভিযান চালিয়ে নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করে রাতেই শিশুটির মা কোলে হস্তাান্তর করে র‌্যাব। অভিযানে নবজাতক চুরির প্রধানি আসামি পলি আরা খাতুন (২০) ও মাফুজা (৪০) কে গ্রেফতার করা হয়।
র‌্যাব সূত্র জানায়, চুরি শিশু উদ্ধারে র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের অভিযানিক দল বোয়ালিয়া ইউনিয়নের গোয়ালগ্রাম মোল্লাপাড়ায় অভিযান চালায়। এসময় সুস্থ অবস্থায় নবজাতক আরিয়ানকে উদ্ধার এবং নবজাতক চুরির প্রধান আসামি একই এলাকার মো. হানিফের স্ত্রী পলি আরা খাতুন ও আশরাফুল ইসলামের স্ত্রী মাফুজা কে গ্রেফতার করা হয়। জিঞ্জাসাবাদে তারা শিশু চুরির কথা ¯^ীকার করে। পরে তাদের আজ সোমবার দুপুরে দৌলতপুর থানায় সোপর্দ করা হয়।
উল্লেখ্য, গত বুধবার (৭ফেব্রæয়ারী) দুপুরে উপজেলার আল্লারদর্গায় অবস্থিত বেসরকারী হাসপাতাল আনোয়ারা বিশ্বাস মা ও শিশু হাসপাতাল থেকে ৩দিনের নবজাতকটি চুরি হয়। নবজাতকের নানী অর্থাৎ প্রসূতির মা রহিমা খাতুন শিশুটিকে কোলে নিয়ে হাসপাতালের প্রসূতির কক্ষে অবস্থানকালে বোরকা পরা অপরিচিত একজন নারী নিজেকে নিঃসন্তান দাবী করে নবজাতককে কোলে নিতে চাই। পানির প্রয়োজন হওয়ায় সরল বিশ্বাসে শিশুটিকে অপরিচিত ওই নারীর কোলে দিয়ে রহিমা খাতুন পানি আনতে গেলে শিশুটিকে নিয়ে ওই নারী হাসপাতাল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিশুর পিতা মো. দিপু ইসলাম বিজয় বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে দৌলতপুর থানায় মামলা করেন যার নং-১৭। মামলার সূত্র ধরে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে চুরি যাওয়া শিশু উদ্ধার ও আসামিদের গ্রেফতার করে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...