• আপডেট টাইম : 15/01/2024 08:12 PM
  • 46 বার পঠিত
  • আওয়াজ ডেস্ক
  • sramikawaz.com

নতুন কাঠামো অনুযায়ী মজুরি সমন্বয় নিয়ে পোশাকশ্রমিকদের অসন্তোষ চট্টগ্রাম রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চলের (সিইপিজেড) পর এখন ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলেও (ডিইপিজেড) ছড়িয়ে পড়েছে। শ্রমিক আন্দোলনের কারণে ডিইপিজেডের পাঁচটি কারখানা ১৪ জানুয়ারি রোববার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দিয়েছে মালিকপক্ষ। অন্যদিকে সিইপিজেডে গত শনিবার থেকে একটি কারখানা বন্ধ রয়েছে।

জানা যায়, গত মাসে ইপিজেডের নতুন মজুরিকাঠামোতে পোশাকশ্রমিকদের জন্য ১২ হাজার ৮০০ টাকা নিম্নতম মজুরি নির্ধারণ করা হয়। গত সপ্তাহে সেই কাঠামো অনুযায়ী মজুরি দেওয়া শুরু হলে শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দেয়। সিইপিজেডের প্যাসিফিক জিনস গ্রুপের কারখানা থেকে গত মঙ্গলবার শ্রমিক আন্দোলন শুরু হয়।


সিইপিজেডের আন্দোলনরত শ্রমিকদের দাবি ছিল, প্রত্যাশিত মাত্রায় তাঁদের বেতন-ভাতা সমন্বয় করা হয়নি। একই গ্রেডে কয়েক বছর কাজ করার পর জুনিয়র ও সিনিয়রের বেতন প্রায় একই রয়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে শ্রমিকেরা ইয়াংওয়ান করপোরেশনের কারখানাগুলোর মতো একই হারে মজুরি বৃদ্ধির দাবি জানান।

চট্টগ্রামের পর ডিইপিজেডের বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকদের মধ্যেও আন্দোলনে ছড়িয়ে পড়ে। এ জন্য গতকাল থেকে পাঁচটি কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। সেগুলো হলো স্টাইরেক্স ফ্যাশনস, এল জেড ওয়্যার ফ্যাশনস, প্যাডকস জিনস, সিকেডিএল ও সুনার ম্যানুফ্যাকচারিং।

জানতে চাইলে ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলের (ডিইপিজেড) নির্বাহী পরিচালক মো. আহসান কবীর গতকাল বলেন, কয়েকটি কারখানায় শ্রমিকদের বেতনসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সমস্যা দেখা দিলে মালিকপক্ষ আলোচনা করে সেগুলোর সমাধান করেছে। অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা কারখানাগুলো কাল-পরশুর (আজ সোমবার ও কাল মঙ্গলবার) মধ্যে খুলে যাবে।


তৈরি পোশাক খাত ব্যবসায় এগিয়ে, মজুরিতে পিছিয়ে
এদিকে সিইপিজেডে শ্রমিকদের আন্দোলন থামেনি। গতকালও চিটাগাং ফ্যাশন নামের একটি কারখানার শ্রমিকেরা কারখানার বাইরে এসে কর্মবিরতি পালন করেছেন। পরে ইপিজেড কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট কারখানার কর্মকর্তা ও শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টির সুরাহা করেন। এ ছাড়া এমএনসি অ্যাপারেলস গত শনিবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রয়েছে। কারখানাটি বন্ধের নোটিশে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার কারখানা চলাকালে শ্রমিকেরা কাজ বন্ধ করে রাস্তায় নেমে আসেন এবং ভাঙচুর করেন।

চট্টগ্রাম ইপিজেডের নির্বাহী পরিচালক আবদুস সোবহান বলেন, নতুন মজুরিতে বেতন সমন্বয় নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছিল। শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে সেটি সমাধান করা হয়েছে। এমএনসি অ্যাপারেলস কারখানা দু-এক দিনের মধ্যে খুলবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...