• আপডেট টাইম : 10/03/2022 04:01 AM
  • 376 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ সন্ধ্যায় পাকিস্তান রেডিওতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে গাদ্দার বলায় দুই সিপাহী তাৎক্ষণিক বিদ্রোহ করেন। এদের একজন কুষ্টিয়ার খোকসার আবুল কাশেম। এরপর থেকে বাঙালি সৈন্যদের ব্যারাকে নানা হয়রানি। পাকিস্তানে বাঙালি সৈন্য এবং পাঞ্জাবিদের মধ্যে বিরোধ বাড়তে থাকে। পাকিস্তানে ক্যাম্পে সিনিয়র সেনাদের টার্গেটে পরিনত হন খোকসার আবুল কাশেম।
খোকসার বেতবাড়ীয়া গ্রামের মজিবর মন্ডলের ছেলে এই আবুল কাশেম। এসএসসি পাস করার পর ১৯৭০ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। পদায়ন হয় পশ্চিম পাকিস্তানে। এর কয়েক মাস পর শুরু হয় বাঙালির মুক্তির সংগ্রাম। এক গভীর রাতে দুই বন্ধু ক্যাম্প থেকে পালিয়ে যান। উদ্দেশ্য, আফগানিস্থান অথবা ভারত সীমান্ত পাড়ি দিয়ে, দেশে ফিরে যুদ্ধে অংশ নেয়া। রাতে আশ্রয় হয় এক বাঙালির বাড়িতে। কিন্তু সেই বিশ্বাসঘাতক তাদেরকে তুলে দন পুলিশের হাতে। এরপর বিচার শুরু হয় সেনাবাহিনীতে। জেলে পরিচয় কয়েকজন সন্ত্রাসী, চোরাকারবারি এবং এক হোটেল ব্যবসায়ীর সঙ্গে। ঘটনা প্রবাহে প্রেম, আফগান সীমান্তে জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে এক ধরনের যুদ্ধ। ধারণা ছিল সেনা বিচারে হয়তো ফাঁসি হয়ে যাবে। কিন্তু রাখে আল্লাহ মারে কে! বেঁচে ফিরেন আবুল কাশেম। সেই কঠিন মুহূর্তগুলোর স্মৃতিকথা লিখে রেখেছিলেন ডায়েরিতে। ¯^াধীনতার ৫০ বছর পর সেই সব অজানা স্মৃতি কথা তুলে এনেছেন বইয়ের পাতায়।
সম্প্রতি এবারের একুশের বইমেলায় আবুল কাশেমের লেখা 'এক সিপাহীর না বলা কথা' বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন বাংলা একাডেমির ভাষা শহীদ উন্মুক্ত মঞ্চে। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মোহাম্মদ নূরুল হুদা। বিশেষ অতিথি ছিলেন এটিএন নিউজের সিইই মুন্নী সাহা।
বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের উপস্থিত ছিলেন খোকসা উপজেলা সমিতির সভাপতি আহসান হাবিব নবাব, মহাসচিব বাবুল আলম বাবুল, কুমারখালি উপজেলা সমিতি ঢাকার সহ-সভাপতি, সাবেক সচিব কাশেম মাসুদ, কুমারখালি স্টুডেন্ডস্ এ্যাসোসিয়েশনের উপদেষ্টা উন্নয়নকর্মী আশরাফুল আলম সাগর, আইডিয়াল কলেজের সহকারী অধ্যাপক রহমত আলী, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক কামরুল হাসান খোকন, ব্যবসায়ী শাহাবুদ্দীন সম্রাট, ব্যাংকার ইমরান হোসেন, মোহনা টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মনিরুল ইসলাম মনি এবং খোকসা ও কুমারখালির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শি¶ার্থীরা।
এরই মধ্যে বইটির ব্যাপারে পাঠকদের দারুণ আগ্রহ তৈরী হয়েছে। সেই সময়ে মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা প্রবাহ, পশ্চিম পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর অবস্থা, ব্যক্তি আবুল কাশেমের দৃড় মনোবল ও জীবন-চেতনা বাংলাদেশের ইতিহাসের একট ভালো বইটি হতে পারে। ‘এক সিপাহীর না বলা কথা’ বইটি প্রকাশ করেছে অনন্যা প্রকাশনী। প্রচ্ছদ একেছেন ধ্রæব এষ। বইটি পাওয়া যাচ্ছে অমর একুশে বই মেলায়। স্টল/ প্যাভিলিয়ন-১৫। দাম ঃ ১৭৫ টাকা। এছাড়া যোগাযোগ মনিরুল ইসলাম মিন্টু, ০১৭১৬-৬০১১৬৪।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...