• আপডেট টাইম : 19/02/2022 08:20 PM
  • 440 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

শীতকালীন বিভিন্ন প্রকার সবজি চাষ করে এবছর ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের সবজি চাষীরা। বিভিন্ন ধরণের সবজি চাষ করে তারা আর্থিকভাবে ¯স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি স্থানীয় বাজারে সবজির চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন সবজি বাজারে সরবরাহ করছেন।
চলতি শীত মৌসুমে কুষ্টিয়ায় প্রায় ৬ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন ধরণের সবজি চাষ হয়েছে। যার তিনভাগের একভাগই দৌলতপুরে। সিম, বেগুন, বাঁধাকপি, ফুলকফি, লাউ, মুলা, গাজর, বিভিন্ন ধরণের শাক ও মরিচসহ নানা ধরনের সবজি চাষ করে চাষীরা তা বাজারজাতকরণে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আবহাওয়া অনুকুলে থাকার কারনে সবজি চাষীরা সবজি চাষ করে বেশ লাভবান হচ্ছেন। আর তা স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বাজারজাতকরণ করা হচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে।
দৌলতপুর উপজেলার দৌলতখালী গ্রামের সবজি চাষী ইন্তাজ আলী জানান, এবছর সে ৩বিঘা জমিতে ফুলকফি চাষ করেছেন। ৩বিঘা জমিতে তার খরচ হয়েছে মাত্র ৫০ হাজার টাকা। এ পর্যন্ত সে ২লক্ষ টাকার ফুলকফি বিক্রয় করেছেন। এখনও ৫০ হাজার টাকার ফুল কফি বিক্রয় হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
দুখীপুর গ্রামের বকুল হোসেন জানান, সে এবছর ১৫ কাঠা জমিতে ফুলকফি চাষ করে ৮০ হাজার টাকার ফুলকফি বিক্রয় করেছেন। জমিতে এখনও যা আছে তা প্রায় ২৫ হাজার টাকায় বিক্রয় হবে।
এবছর শীতকালীন সবজি চাষ করে চাষীরাও লাভবান হচ্ছেন। আর সবজি চাষে তাদের উৎসাহ দেওয়ার পাশাপাশি ভাল ফলনের জন্য কৃষি বিভাগ বিভিন্ন ধরণের প্রণোদনা, তদারকি ও পরামর্শ দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার সুফি মো. রফিকুজ্জামান।
কৃষকদের বেশী বেশী সবজি চাষে উৎসাহ ও প্রণোদনা দিলে একদিকে যেমনক্ষতিকর তামাক চাষ প্রবণ এলাকা কুষ্টিয়ার চাষীদের তামাক চাষ থেকে মুখ ফেরানো সম্ভব, অপরদিকে অর্থকরী ফসল সবজি চাষ করে তারা আর্থিকভাবেস্বা বলম্বী হওয়ার পাশাপাশি সবজির চাহিদা পুরণ সম্ভব হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...