• আপডেট টাইম : 17/01/2022 11:34 PM
  • 397 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

কুষ্টিয়ায় চারা পিয়াঁজ রোপনে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষীরা। পিঁয়াজ অর্থকরী চাহিদা সম্পন্ন ফসল হওয়ায় পিঁয়াজ চাষ করে বছরের অর্থনৈতিক চাহিদা মিটিয়ে থাকেন তারা। বাড়তি লাভের আশায় কুষ্টিয়ার চাষীরা এখন চারা পিঁয়াজ রোপনে ব্যস্ত রয়েছেন।
চলতি মৌসুমে কুষ্টিয়ায় ১২ হাজার ৯১০ হেক্টর জমিতে পিঁয়াজ চাষের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে। এরমেধ্যে চারা পিঁয়াজ লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৯ হাজার ৬১০ হেক্টর। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এ মৌসুমেও পিঁয়াজের ভাল ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। প্রতি বিঘা জমিতে পিঁয়াজ চাষে চাষীদের খরচ হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা। বিদেশ থেকে পিঁয়াজ আমদানি করা না হলে পিঁয়াজ চাষে চাষীরা লাভবান হবেন বলে তারা জানিয়েছেন। এক্ষেত্রে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তারা।
দৌলতপুরের পিঁয়াজ চাষী নিজামুদ্দিন জানান, চলতি মৌসুমে মুলকাটা পিঁয়াজের ফলন ভাল হলেও দাম আশানারুপ হওয়ায় চারা পিঁয়াজ চাষ করে তা পুসিয়ে যাবে এমন আশায় চারা পিঁয়াজ চাষ করা হচ্ছে। তবে এক্ষেত্রে বিদেশ থেকে পিঁয়াজ আমদানী না করার আহবান জানানা তিনি।
পিঁয়াজ চাষে চাষীদের বীজ, সারসহ প্রয়োজীয় প্রনোদনা ও পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি এবছরও ঁিপয়াঁজের দাম ভাল পাওয়ায় পিঁয়াজ চাষ সম্প্রসারিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কুষ্টিয়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুশান্ত কুমার প্রমানিক।
চাষীদের উৎপাদিত মুলকাটা পিঁয়াজের দাম নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করলেও চারা পিঁয়াজ চাষ করে তা পুসিয়ে যাবে এমনই প্রত্যাশা তাদের।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...