• আপডেট টাইম : 21/05/2024 11:18 PM
  • 212 বার পঠিত
  • মোহাম্মদ রেফায়েত উল্লাহ্ মীরধা
  • sramikawaz.com

বাজেটে প্রতিবছরই ব্যবসা-কেন্দ্রিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। আশ্চর্যজনক হলেও সত্য যে বাজেট প্রণয়ন করার পূর্বে যত বাজেট সংক্রান্ত আলোচনা হয় প্রত্যেকটাতেই শুধু ব্যবসা-সংক্রান্ত আলোচনা হয়।মনে হয় যেন বাজেট দেওয়া হয় শুধু ব্যবসায়িদের জন্যই । অর্থাৎ বাজেটে কত শতাংশ ট্যাক্স কমল বা বাড়ল এবং ডিউটি কত শতাংশ কমানো বাড়ানো যায় তা নিয়ে আলোচনা।

এক্ষেত্রে সরকারের আমলারা ও ব্যবসায়িরা এক হয়ে যায়।কিন্তু এদেশে বিরাট একটি মধ্যবিত্ত শ্রেণি রয়েছে যাদের অনেকেই খুব দুঃখে কষ্টে জীবন যাপন করছে তাদেরকে নিয়ে বাজেটে কেউ কিছু বলেনা।যেন তাদেরক দেখার কেউ নেই।তারা কারো কাছে যেতেও পারেনা। তাদের সংখ্যা যদি বলা হয় তাহলে সেটি মোট জনসংখ্যার ৭৫%এর কম হবেনা।

সরকার আইএমএফের পরামর্শ অনুযায়ি তেলের দাম বাড়িয়ে দিল, জনগন আরো চাপের মুখে পড়বে, বিশেষ করে এই মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষেরা । কারণ ব্যবসায়িরা তো বিভিন্ন ধরণের সুযোগ- সুবিধা পাচ্ছেন আবার যারা গরীব তারা ও অনেক ধরণের ভাতা পাচ্ছেন । এগুলো ভালো, কিন্তু মধ্যবিত্তরা যারা মোট জনসংখ্যার একটি বিরাট অংশ শুধু দিয়েই গেলেন , তারা নিষ্পেষিত হচ্ছেন।তারা কিছুই পাচ্ছেন না।বাজেটে তাদের জন্যে কিছু করার পরামর্শ রইল।

শিল্পে সুবিধা দেওয়া কোনো খারাপ নয় ,এটি ভালো, কিন্তু পাশাপাশি দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত মানুষকে আরো বেশী সুবিধার অন্তর্ভূক্ত করা খুবই প্রয়োজন। কারণ একটি অর্থনীতির অন্যতম মূল ভিত্তি হচ্ছে মধ্যবিত্ত পরিবার। বাংলাদেশের মধ্যবিত্তরা শুধু দিয়েই যাচ্ছে এবং কাজ করেই যাচ্ছে।তুলনামূলকভাবে তারা রাষ্ট্রের কাছ থেকে খুবই কম সুবিধা পাচ্ছে।

সরকার প্রতিবছর বাজেটে সামাজিক সুরক্ষা বাবদ একটি বরাদ্দ দিয়ে থাকে , যা থেকে মূলত দুঃস্হ,বিধবা ,বয়স্ক লোকজনকে ভাতা দেওয়া হয়।এই উদ্যোগ অবশ্যই ভালো ও প্রশংসনীয় ।কিন্তু যেই পরিমাণে সামান্য ভাতা দেওয়া হয় তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই যৎসামান্য।এখানে অবশ্যই বরাদ্দ ও সুবিধা ভোগীদের সংখ্যা বাড়ানো উচিত। পাশাপাশি যারা মধ্যবিত্ত যেমন বেসরকারি খাতে চাকুরিজীবি ,পেনশনার, অবসর প্রাপ্ত কর্মকর্তা -কর্মচারী ,কৃষক,স্বল্প ও সীমিত আয়ের চাকুরিজীবি পেশাজীবি তাদেরকে এই ভাতা কার্যক্রমের আওতায় আনা উচিত । তাতে করে তারা একটু স্বাচ্ছন্দ জীবন যাপন করতে পারবে ও তাদের ছেলেমেয়েদেরকে লেখাপড়া করাতে পারবে।যাঁদের কথা বললাম তাদের অনেকেই চিকিৎসা খরচ চালাতে ও সমস্যা মোকাবেলা করেন , তারা কারো কাছে যেতে ও পারেননা। তাই বাজেটে তাদের জন্যে ও বরাদ্দ রাখা হউক ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...